স্বাস্থ্য খাতে বিশ্ব ব্যাংকের ১৫ কোটি ডলার সহায়তা

বাংলাদেশে স্বাস্থ্য খাতের উন্নয়নে আরও ১৫ কোটি ডলার ঋণ দিচ্ছে বিশ্ব ব্যাংক।  ‘হেলথ সেক্টর ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রাম’ এ এই অর্থ দেওয়া হচ্ছে। এ নিয়ে এই কর্মসূচিতে দাতা সংস্থাটির অর্থায়ন দাঁড়াচ্ছে ৫০ কোটি ৮৯ লাখ ডলার।

বিশ্ব ব্যাংকের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এ অতিরিক্ত অর্থ অধিক সংখ্যক মানুষকে প্রতিষেধক প্রদান, সরকারি স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্রে গর্ভবতী মায়েদের সেবার মানোন্নয়ন এবং যক্ষা প্রতিরোধসহ স্বাস্থ্য খাতের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সরকারকে সহায়তা করবে।

এছাড়া এর মাধ্যমে স্বাস্থ্য তথ্য ভাণ্ডার গড়ে তোলা হবে, যাতে বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো ওয়েবসাইটের মাধ্যমে স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সমস্যার সমাধান দেওয়া হবে।

এ ঋণ পরিশোধের জন্য ৩৮ বছর সময় পাবে বাংলাদেশ। থাকছে ছয় বছরের গ্রেস পিরিয়ড। ঋণের জন্য মাত্র দশমিক ৭৫ শতাংশ হারে সার্ভিস চার্জ দিতে হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে বিশ্ব ব্যাংকের আবাসিক প্রতিনিধি কিমিয়াও ফান বলেন, বাংলাদেশে স্বাস্থ্য খাতে যে অগ্রগতি এসেছে তা ‘উল্লেখযোগ্য’। মা ও শিশু স্বাস্থ্য এবং পরিবার পরিকল্পনায় বাংলাদেশের উন্নয়ন বিশ্বে স্বীকৃত।

“তারপরেও এখনও অনেক বাংলাদেশি মানসম্মত স্বাস্থ্য সেবার জন্য সংগ্রাম করছে।”

স্বাস্থ্য সমস্যার কারণে বাংলাদেশ অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

বিশ্ব ব্যাংক বলছে, স্বাস্থ্য খাত উন্নয়ন উন্নয়ন কর্মসূচি এবং এর আগে সরকারের নানা উদ্যোগের কারণে ২০১০ সাল থেকে বাংলাদেশে মাতৃ মৃত্যুর হার ৪০ শতাংশ কমেছে। ২০০৭ সালের তুলনায় ২০১৪ সালে বাংলাদেশে ৫ বছরের কম বয়সের শিশু মৃত্যুর হার কমেছে ২৯ শতাংশ। একই সময়ে প্রশিক্ষণ প্রাপ্তদের উপস্থিতিতে সন্তান প্রসবের প্রবণতা ২১ শতাংশ থেকে বেড়ে ৪২ শতাংশ হয়েছে।

1 Star2 Stars3 Stars4 Stars5 Stars (No Ratings Yet)
Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *